blog post banner

ডোমেইন এবং হোস্টিং এর বেসিক, কি? কেন? কিভাবে?

1. ডোমেইন এবং হোস্টিং কী?
2. ডোমেইন কিভাবে রেজিস্ট্রেশন করতে হয়?
3. হোস্টিং কিভাবে কিনতে হয়?
4. ডোমেইন এবং হোস্টিং কিভাবে সেটাপ করতে হয়?

ডোমেইন কি ?

আপনার সাইটের জন্য ডোমেইন নাম হল একটি অদ্বিতীয় নাম। এই নামটাই আপনার সাইটের মুল ঠিকানা হবে। সাইটের মুল পাতাটি (হোম পেজ) সাধারনত ডোমেইন নামে অবস্থিত। যেমন Dhrubo Host কোম্পানীর ডোমেইন নেম www.dhrubohost.com আমাদের এ সাইটটির ডোমেইন নাম ।এই নামটি নিবন্ধন করে নিতে হবে, নিবন্ধন করার সাথে সাথেই ঐ সাইটের সকল তথ্য এবং আইপি এড্রেস DNS (Domain name System) Server এ সংরক্ষিত হয়ে যায়। শেষে যে শব্দটি থাকে যেমন .com, .net, .org ইত্যাদি এগুলো নিজের ইচ্ছামত ঠিক করতে পারেন-সাধারনত কমার্শিয়াল হলে .com, অর্গানাইজেশন হলে .org এভাবে নিয়ে থাকে।

ডোমেইন নাম নিবন্ধনের অনেক কোম্পানি আছে, প্রতিটি ডোমেইন নামের জন্য সাধারনত ১০ – ১৫ ডলার (৮০০ – ১৫০০ টাকা) দিতে হবে বছরে। যদি .com.bd এরুপ ডোমেইন নেন তাহলে BTCL এ এপ্লিকেশন করে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।

ডোমেইন নাম ঠিক করার সময় অবশ্যই এরুপ নাম নিবেন যেটা উচ্চারন সহজ, অর্থপূর্ন, অল্প শব্দে হয়। .com, .org, .net, .biz, .edu ইত্যাদি টপ লেভেল ডোমেইন। এছাড়া অনেক ফ্রি ডোমেইন আছে যেমন, .tk ।

হোস্টিং কি ?

আপনার ওয়েব সাইট তখনই সারা বিশ্ব থেকে দেখা যাবে যখন আপনি আপনার সাইট কোন ওয়েব সার্ভারে হোস্টিং করবেন(জায়গা করে নেবেন)। যেমন Dhrubo Host একটি হোস্টিং প্রোভাইডার কোম্পানি। আপনি এই সাইট টি তে বিশ্বের যে কোন জায়গা থেকে এক্সেস করতে পারবেন এবং হোস্টিং সেবা নিতে পারবেন।

যখন আপনি একটা ওয়েব সাইট তৈরী করবেন তখন কোন পাবলিক ওয়েব সার্ভারে আপনার সাইটটি কপি করে রাখতে হবে। আপনি চাইলে আপনার পিসিকে ওয়েব সার্ভার করতে পারেন তবে এজন্য বেশ প্রস্তুতি দরকার। সাধারনত যেটা করা হয় তা হচ্ছে বিভিন্ন কোম্পানি এসব প্রস্তুতি নিয়ে অর্থ্যাৎ ওয়েব সার্ভার ও অন্যান্য সেবা নিয়ে বসে আছে। আপনি তাদের কাছে গেলেই নির্দিষ্ট পরিমান টাকার বিনিময়ে এসব সার্ভিস দেবে। কিছু বৈশিষ্ট্যের ভিত্তিতে এসব কোম্পানির বিভিন্ন প্যাকেজ আছে আপনি আপনার সুবিধামত প্যাকেজটি বেছে নিবেন।পরবর্তী টিউটোরিয়ালগুলিতে এসব বৈশিষ্ট্যগুলির আলোচনা করা হবে যাতে একজন বুঝতে পারে কোন্ কোন্ সুবিধাসহ প্যাকেজটি তার দরকার নিজের সাইটটির জন্য।

আমরা ব্রাউজারে যখন একটা ওয়েবসাইটের ঠিকানা লিখি এবং ইন্টারনেট কানেকশন থাকে তখন ব্রাউজার সেই ঠিকানাটিকে প্রসেস করে একটা সার্ভারে পাঠিয়ে দেয়। সেই সার্ভার তখন রিকোয়েস্ট অনুযায়ী নির্দিষ্ট পেজটি ব্রাউজারে পাঠিয়ে দেয় এবং আমরা পেজটি দেখি। তো এই সার্ভারটি যদি কখনও বন্ধ থাকে এবং সেই সময় যদি কোন ইউজার রিকোয়েস্ট পাঠায় তাহলে ইউজার দেখবে সাইট টি কাজ করছেনা অর্থ্যাৎ সার্ভার ডাউন।এমন সার্ভার নিতে হয় যেটা ২৪ ঘন্টা প্রস্তুত থাকবে কেননা আপনার সাইটের কোটি কোটি ভিজিটর থাকতে পারে এবং আপনি জানেন না যে কে কখন আপনার সাইটে ঢুকবে (বা আপনার সাইটের জন্য রিকোয়েস্ট পাঠাবে)। একটা সার্ভার কতক্ষন প্রস্তুত আছে সেই সময়টা হচ্ছে সেই সার্ভারের আপটাইম ।

হোস্টিং কিভাবে কিনতে হয়?

ডোমেইন হোস্টিং সার্ভিস কোথা থেকে নিবেন সেটা ঠিক করবার আগে আপনাকে জানতে হবে বেশ কিছু তথ্য! আপনাকে বুঝতে হবে আপনার প্রাথমিক দরকার গুলিকে। আর সেই বিষয়ে সাহায্য করবার জন্যই এই লেখা।

যা জানতে হবেঃ
১. ডোমেইনের সাথে ডোমেইন কন্ট্রোল প্যানেল থাকে এবং এটা আপনার হাতেই থাকতে হবে।
২. হোস্টিং এর সাথে হোস্টিং কন্ট্রোল প্যানেল (সিপ্যানেল) থাকে এবং এটাও আপনার হাতেই থাকতে হবে।
৩. আপনার হোস্টিং প্রোভাইডার কি কনফিগারেশনের সার্ভার ব্যবহার করে।
৪. সার্ভার আপটাইম কত এবং ২৪ ঘন্টা সাপোর্ট আছে কি না।
৫. ম্যানিব্যাক গ্যারান্টি কতদিনের এবং তার শর্ত সমূহ।
৬. একটি সার্ভাসরে কতগুলি করে সাইট হোস্ট করা থাকে।

তবে ডোমেইন, হোস্টিং নেওয়ার আগে অবশ্যই যাচাই করে ভালো মানের হোস্টিং প্রোভাইডারের কাছ থেকে নেয়া উচিত।

যা দেখে প্রতারিত হবেন নাঃ
সাধারণ মানের সার্ভিস প্রোভাইডাররা তাদের হোস্টিং এর দাম অনেক কম রেখে থাকে, তার একটি কারণ হচ্ছে তারা এক সার্ভারেই প্রচুর সাইট হোস্ট করে, যা উচিত নয়। কিন্তু আমাদের সার্ভারের খুবই অল্প পরিমানে সাইট হোস্ট করবার কারণে আমাদের সার্ভার থাকে দ্রুত গতির এবং ঝামেলা মুক্ত। তাই আপাত দৃষ্টিতে আমাদের সার্ভিসের দাম বেশী মনে হলেও আপনিই জিতছেন শেষ পর্যন্ত।

আনলিমিটেড হোস্টিং বলে এক ধরনের হোস্টিং পাবেন। কখনো আনলিমিটেডের ফাদে পা দিবেন না। কারন সার্ভার এর হার্ড ডিস্ক কখনো আনলিমিটেড হয় না। যেমন আমাদের পিসির হার্ডডিস্ক ৫০০ জিবি ১ টেরাবাইট, সার্ভার এর হার্ড ডিস্ক ও এরকম। আনলিমিটেড শব্দ ব্যবহার করে চমকপ্রদ বিজ্ঞাপন দেয়াই এসব কোম্পানীর কাজ। এদের থেকে দূরে থাকুন।

ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন এবং হোস্টিং কিভাবে সেটাপ করতে হয়?

ডোমেইন ও হোস্টিং নেওয়ার জন্য অবশ্যই হোস্টিং প্রোভাইডারের সাইট থেকে অর্ডার করতে হবে। ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে Dhrubo Host এর ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন। তারপর, ডোমেইন সার্চ করুন।

Domain Search in Dhrubo Host

 

উপরের ছবিটি তে একটি সার্চ বক্স দেখা যাচ্ছে। এখানে গিয়ে আপনার কাঙ্ক্ষিত ডোমেইন নাম টি সার্চ করুন।

Domain Search Result Dhrubo Host

এবার Add to cart এ ক্লিক করুন। তারপর Checkout এ ক্লিক করুন।

 

Purchase Domain Dhrubo Host

এবার যদি হোস্টিং ক্রয় করতে চান তাহলে Continue Shopping এ ক্লিক করুন। আর যদি শুধু ডোমেইন কিনতে চান তাহলে নিচে নাম এবং অন্যান্য তথ্যাদি দিয়ে রেজিস্ট্রেশন সম্পূর্ণ করুন।

এবার আপনার পছন্দ অনুযায়ী প্যাকেজ সিলেক্ট করুন তারপর নিচের মতো একটি পেজ আসবে।

 

Web Hosting Dhrubo Host

কার্টে যদি আপনার ডোমেইন এড করা থাকে তাহলে Continue তে ক্লিক করুন অথবা, প্রয়োজন অনুযায়ী যেকোন অপশনে ক্লিক কর। এবার নিচের মতো একটি পেইজ আসবে।

 

Hosting in Dhrubo Host

 

উপরের চিত্রে তিনটি অপশনের যে কোন টি তে ক্লিক করুন। ধরুন, আপনি যদি চেকআউট করতে চান তাহলে চেকআউটে ক্লিক করুন।

 

Domain Configuration Dhrubo Host

 

আর এখানে বাই ডিফল্ট Nameserver এর এড্রেস দেয়া আছে। তো ডোমেইন এন্ড হোস্টিং অর্ডার এর কাজ আপাতত শেষ।
আপনার পেমেন্ট সম্পন্ন করে ইমেইল চেক করুন, সেখানে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন সফল এবং সিপ্যানেল এর তথ্যাদি পেয়ে যাবে।

cloudflare-banner

ওয়েবসাইটে ফ্রি ক্লাউডফ্লেয়ার ব্যবহার করুন, ওয়েবসাইট দ্রুত এবং সিকিউর করুন

প্রথমেই ক্লাউডফ্লেয়ার কি এবং এর সুবিধাগুলো সম্পর্কে লিখিঃ 

ক্লাউডফ্লেয়ার হচ্ছে একটি গ্লোবাল কমিউনিটি যারা ওয়েব ট্রাফিক নিজেদের ইন্টিলিজেন্ট নেটওয়ার্কের মধ্যে দিয়ে রাউট করে। সহজ ভাষায় বললে, আপনি যখন ক্লাউডফ্লেয়ার কমিউনিটিতে জয়েন করবেন তখন ক্লাউডফ্লেয়ার কমিউনিটির সুযোগ সুবিধা গুলো ব্যবহার করতে পারবেন। তাদের সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো সিডিএন টেকনোলজি এবং ওয়েবসাইট সিকিউরিটি।

CDN (কন্টেন্ট ডেলিভারি নেটওয়ার্ক) টেকনোলজির মাধ্যেমে দ্রুততম সময়ে ভিজিটর’রা ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারে। ক্লাউডফ্লেয়ার এর গ্লোবাল নেটওয়ার্কে সারা বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে সার্ভার স্থাপন করা আছে। তারা ভিজিটর এর লোকেশন ট্র্যাক করে সবচেয়ে কাছের সার্ভার থেকে ডাটা সার্ভ করে তাই ভিজিটর খুব কম সময়ে সাইট ব্রাউজ করতে পারে। ক্লাউডফ্লেয়ার যেকোন ধরনের ম্যালওয়ার, এবিউসিভ বট, থ্রেট, ক্রওলার থেকে সাইট সুরক্ষা করে সেকারনে প্রচুর ব্যান্ডউইথ ও বাচানো সম্ভব হয়।

সংক্ষেপে ক্লাউডফ্লেয়ার এর সুবিধাসমূহঃ 

১/ CDN – কন্টেন্ট ডেলিভারি নেটওয়ার্ক।

২/ ওয়েবপেজ অপ্টিমাইজেশন।

৩/ DDos প্রোটেকশন এবং SQL Injection থেকে সুরক্ষা।

৪/ বিভিন্ন ম্যালওয়ার/ থ্রেট থেকে সুরক্ষা প্রদান।

৫/ ভিজিটর এনালাইটিকস সুবিধা প্রদান।

৬/ শক্তিশালি, দ্রুত এবং সিকিউর DNS সুবিধা।

ক্লাউডফ্লেয়ার ছাড়া এবং ক্লাউডফ্লেয়ার সহ ওয়েবসাইটের অবস্থা

ক্লাউডফ্লেয়ার ছাড়া এবং ক্লাউডফ্লেয়ার সহ ওয়েবসাইটের অবস্থা

Continue reading

সফলতা কোন প্রাপ্তি না, দক্ষতা না, না এটা আপনার সম্পদ। এটা একটা অভ্যাস এবং উপলব্দি

একবারে ফাল দিয়ে সফল হয়ে যাবেন এতো আশা কইরেন না। সফলতা এতো সহজ জিনিস নয় যে ঘুমাতে ঘুমাতে পেয়ে যাবেন। অনেকে আছে, সফলতা কি আসলে সেটাই উপলব্দি করতে পারে না। মাঝে মাঝে ব্যর্থ হলে আমি মহা খুশি হই, কারন পরবর্তী বার যখন আমি একই কাজে নামবো, আমার ভিতর থেকে আমি বুঝতে পারি যে এবার আমি ভুল করবো না এবং সফল হবো।

ছোট ছোট সফলতা গুলো হচ্ছে এক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জিনিস। এগুলো কে অনেকেই পাত্তা দেয় না। প্রতিবার কপালে ইলিশ জুটবে এটা ভেবে নেয়া বোকামি। তাই, ছোট ছোট সফলতা গুলোকে সেলিব্রেট করতে শিখুন। এদেরকে মূল্য দিন। কারন, অনেক গুলো ছোট ছোট সফলতা মিলেই কিন্তু একটি বড় সাফল্য তৈরী হয়।

কখনো কি এমন করেছেন? হয়তো আজ খুবই ছোট একটা কাজে সফলতা পেয়েছেন যা অন্যদের বলতেও লজ্জা হচ্ছে কারন এটা এতোই ছোট কিন্তু আপনি একাই আপনার ঘরে সেটাকে সেলিব্রেট করলেন আর একাই হাসলেন আর নিজেকে উৎসাহিত করলেন আর বললেন, “পরের বারের জন্য তৈরী হও বাছা”।

আসলে, সফলতা কোন প্রাপ্তি না, দক্ষতা না, না এটা আপনার সম্পদ। এটা একটা অভ্যাস এবং উপলব্দি। সফলতা গুলোকে উপলব্দি করতে শিখতে হবে। আপনি যখন সফল হবেন তখন আপনার প্রতিটি রক্তবিন্দু পর্যন্ত টের পাবে। কারন, একমাত্র তারাই আপনার ঘামের হিসেব রেখেছে আর কেউ নয়।

techjobbanner

টেক জব’স বিডি

দেশের বর্তমান অবস্থা এমন সবার একটা / দুইটা করে ই-কমার্স, ঘরে ঘরে ফ্রিল্যান্সার, একটা করে ওয়েব ডেভলপমেন্ট কোম্পানী, একটা করে এন্টারপ্রেনিয়ার। সবাই স্বাধীন হবে। কিন্তু, সত্যিকার অর্থে খুবই অল্প কিছু সফল মুখ ছাড়া আমাদের অর্জন খুবই সামান্য।

আসল কথা কি, চাকুরী করেন আর ফ্রিল্যান্সিং, ই-কমার্স যা ই করেন। আপনাকে প্রথমে যেটা অর্জন করতে হবে সেটা হচ্ছে দক্ষতা। একজন দক্ষ ব্যক্তি সে চাকুরী থেকে শুরু করে যা ই করুক না কেনো, অন্যদের থেকে তার সফলতার চান্স অনেক অনেক গুণ বেশি।

প্রথমে শুধুমাত্র নিজের নেটওয়ার্ক থেকে ব্যক্তিগত চেষ্টায় জব দেয়ার ইচ্ছে ছিলো। কিন্তু বেশ কিছুদিন যাবত ছোট এবং বড় কিছু কোম্পানীর আগ্রহের ভিত্তিতে পরিসরটাকে আরো বড় করার চিন্তাভাবনা করছি। এখন থেকে বেশ কিছু কোম্পানীর জব সার্কুলার শুধুমাত্র এখানেই পোস্ট করা হবে এবং এই গ্রুপ থেকেই যোগ্য লোক নিয়োগ করা হবে।

আপাতত এটুকুই! বিস্তারিত আসছে…
গ্রুপ লিঙ্ক https://www.facebook.com/groups/swejob

Inside_and_Rear_of_Webserver

Fully Managed High Configuration VPS with Free cPanel / WHM

Fully Managed High Configuration VPS with Free cPanel / WHM. You can Highly Use For High Traffic E-commerces, Newspaper Websites, Commercial Company Use, Radio Stations etc.

Each VPS Configuration Has Something Awesome –

→ Free cPanel / WHM
→ Fully Managed Service
→ 6 TB to 14 TB Bandwidth
→ 16 + Core CPU Processor
→ Free VPS Backup Service
→ RAID-10 H/W Drive
→ Full Root Access
→ 1 GBPS Uplink Speed
→ 99.9% Guaranteed Uptime
→ Free Data Migration Service

Click Here for Detail Information 

banner_123

Contact 01795 47 00 74
sales@dhrubohost.com
web : www.dhrubohost.com

মার্কেটপ্লেস ভাবনা

মার্কেটপ্লেস হচ্ছে প্রফেশনালদের জায়গা। অনলাইন / রিমোট জবের ক্ষেত্রে যারা প্রফেশনাল অথবা এক্সপার্ট (হোক প্রোগ্রামার / ডিজাইনার / মার্কেটার) তারাই কিন্তু সারাবিশ্বের অনলাইন কমিউনিটির লিডিং পজিশনটা ধরে রাখে এবং রাখবে।

একজন প্রফেশনাল সে কোন মার্কেটপ্লেসে কাজ করুক আর না ই করুক কমপক্ষে একবার হলেও সে একটি মার্কেটপ্লেস ভিজিট করে। আপনি হয়তো ইল্যান্সে কাজ করেন না, অন্য মার্কেটপ্লেসে কাজ করেন অথবা কোন মার্কেটপ্লেসেই কাজ করেন না। কিন্তু আপনি কি একবারও ইল্যান্স ভিজিট করেননি? এটাই বলতে চাচ্ছি।

একজন প্রফেশনালের যদি প্রথমবার ভিজিটে সেই সাইটটি সম্পর্কে খারাপ ধারনা তৈরী হয় তবে সেটা গোটা কমিউনিটিতে খারাপ ইফেক্ট তৈরী করে। প্রফেশনাল’রা ডামি জিনিস পছন্দ করে না। তারা প্রফেশনাল কাজ করে এবং সেটাই পছন্দ করে। তারা প্রফেশনাল, তাই তারা যেদিকে যায় গোটা কমিউনিটি সেদিকে তাদের ফলো করে চলে।

চমকে আমাদের সাধারন জনগন অত্যন্ত অভ্যস্ত। তাদের যেকোন কিছু দিয়েই চমকে দেয়া যায়। সাধারন’রা ই চমকে অতি উৎসাহি হয় কারন তারা হুট করে বড় কিছু হয়ে যেতে চায় প্রফেশনাল’রা না। প্রফেশনালদের চমক দিয়ে আটকানো যাবে না। চমক দিলে তারা চমকিত হবে এমনটা ভাবা ভুল। যেকোন মার্কেটপ্লেসের এসব জিনিস মাথায় রাখা খুবই দরকার, তারা প্রফেশনাল নিয়ে চলবে নাকি ডামি’ নিয়ে?
৫০০-১০০০ ডলার খরচ করে ডোমেইন, হোস্টিং, ভালো দেখতে একটা ওয়েবসাইট বানানু কোন ব্যাপারই না। প্রফেশনালিজম বিষয়টা শুধু ভালো ওয়েবসাইটের উপর ও ডিপেন্ড করে না। ওভারঅল কোয়ালিট, সার্ভিস, সাপোর্ট এবং আর অনেক কিছু নিয়ে ই হয় “প্রফেশনালিজম”।

The more you jump the more you will lose

I’m doing hard work and waiting for something permanent, I will wait more for a good scope if needed. I did lots and lots of temporary works and i hate this! I hate jumping here and there.

I believe, everyone should setup his mind first, then follow your own plan! don’t jump every now and then, don’t change your plan everyday. Trust me, the more you jump the more you will lose.