জিন্দা পার্ক

জিন্দা পার্ক (Zinda Park), ১৯৮১ সালে ১৫০ বিঘা জমির ওপর অগ্রপথিক পল্লী সমবায় সমিতির পাঁচ হাজার সদস্য জিন্দাপার্কটি গড়ে তোলেন। স্থানীয় যুবকেরা তাদের পৈতৃক টিলা ও বনজ জমি সম্বল করে এলাকাটিকে পার্কের আদলে গড়ে তোলেন পরম যত্নে। এখানে লেক, গাছ, বাড়ি, পরিবেশবান্ধব সাঁকো, ২৫০ প্রজাতির দুর্লভ গাছ এবং ফুলের সমারোহ। পুরো পার্কে রয়েছে বসার জন্য নান্দনিক বেঞ্চ। শহর থেকে যেন গা বাঁচিয়ে গড়ে ওঠা সবুজ এ পার্কে বুক ভরে নেয়া যাবে বিশুদ্ধ বাতাস। গাছ, ঘাসের বিছানা, মাটির রাস্তা, প্লাস্টিক ড্রাম দিয়ে তৈরি ভাসমান সাঁকো, বাগান, হ্রদ, লাইব্রেরি ও আধুনিক পর্যবেক্ষণ টাওয়ার এ পার্ক। প্রবেশ মূল্য ১০০ টাকা। ফোন নাম্বারঃ 01716-260908, 01715-025083। ওয়েবসাইটঃ http://zindapark.com

পার্কের ভিতর মহুয়া স্ন্যাকস অ্যান্ড মহুয়া ফুডস রেস্টুরেন্ট আছে। ভাত/ভাজি/ডাল/মাংস ২০০/২৫০ টাকা। তবে পার্কে ঘুরা শেষে ৩০০ ফিট এসে খেলে ভালো হয়। ৩০০ ফিটে খাওয়া ভালো এবং খরচও কম হবে। তবে বাহিরে থেকে খাবার নিয়ে পার্কে যেতে চাইলে অতিরিক্ত ২৫/- টাকা জনপ্রতি দিতে হবে।

ঠিকানাঃ পূর্বাচল, রুপগঞ্জ, নারায়নগঞ্জ।


গত এক বছর এরকম একটি লেখা ফেসবুকে মাঝে মধ্যেই ঘুরে বেড়ায় টাইটেল এমন যে ঢাকার আশেপাশে বা, গাজিপুরের ২০টি রিসোর্ট, ৩০ টি রিসোর্ট আর ক্লিক করে যখন পড়তে যাই তখন ই খাই ধোকা। কারন, অনলাইনে একটা লেখাই কপি পেস্ট হতে হতে হাজার হাজার পেজ, ওয়েবসাইট, ব্লগে চলে গেছে। কেউ হয়তো কষ্ট করে লিখেছিলেন কিন্তু তারপর আর কেউ সেটা পরিমার্জন বা, আপডেট করে নাই বললেই চলে। সেই ২-৩ বছর আগের তথ্যই অনলাইনে ঘুরে বেড়াচ্ছে যার কারনে অনেকেই সমস্যায় ও পরছে।

এই কয় বছরে যেমন দারুন কিছু রিসোর্ট হয়েছে তেমনি বেশ কয়েকটি বন্ধ হয়ে গেছে আবার অনেক রিসোর্ট এর বেশ অনেক খারাপ রিভিউ পাওয়া গেছে। তাই এই তথ্যগুলো আপডেট কে করবে সে চিন্তা না করে নিজেই বেড়ালের গলায় ঘন্টা বাধতে নেমে গেলাম। প্রাথমিক ভাবে ৩০টি রিসোর্ট নিয়ে লিখবো ইনশাল্লাহ। পরবর্তীতে আস্তে আস্তে বাড়বে। সবগুলো রিসোর্ট রিসোর্ট/হোটেলের লিস্ট (ইন্ডেক্স) পাবেন এই লেখায়


ভ্রমন সংক্রান্ত যেকোন প্রশ্ন / তথ্য / ট্যুর প্ল্যানের জন্য আমাদের ফেসবুক গ্রুপ ছুটি ট্রাভেল গ্রুপে জয়েন করতে পারেন। ছুটির সব মেম্বার খুবই হেল্পফুল, সুন্দর একটি ট্যুরের জন্য সকল হেল্প এখানে পাবেন। এছাড়া আমি ছুটির সাথে প্রতিমাসেই ট্যুর দিয়ে থাকি চাইলে ছুটির ইভেন্টেও জয়েন করতে পারেন। ছুটি একটি ফ্যামিলি ফ্রেন্ডলি ট্রাভেল গ্রুপ তাই নিশ্চিন্তে যেতে পারেন দেশের যেকোন প্রান্তে। 

ফেসবুক গ্রুপ – ছুটি ট্রাভেল গ্রুপ (https://fb.com/groups/ChutiTravelGroup)

মন্তব্যসমূহ / আলোচনা