হারানো প্রকৃতির খোজে জল ও জঙ্গলের কাব্য

10 Jan

জল ও জঙ্গলের কাব্য (Jol o Jongoler Kabbo), অনাবিল সবুজ, মাছের দেখা নাই তবু বড়শি হাতে বসে থাকতে চান নিস্তরঙ্গ দুপুরে তাদের জন্য অপেক্ষায় আছে জল জঙ্গলের কাব্য। এক নিভৃতচারী মানুষের স্বপ্নসাধ বলা যায় এই আয়োজন, ঢাকার অদূরে পূবাইলে ৯০ বিঘা জমির উপর গড়ে উঠেছে একটুকরো গ্রাম। বাঁশ আর পাটখড়ির বেড়া ,উপরে ছনের ছাউনি, সামনে দিগন্ত বিস্তৃত জলের নাচন।

জল ও জঙ্গলের কাব্য, পুবাইল

মূলত একজন পাইলট জায়গা কিনে ঠিক যেভাবে ছিলো সেভাবেই রেখে দিয়েছেন কোন পরিবর্তন না করে। তাই এখানে এলে আপনি সত্যিকারের আদি প্রকৃতি উপভোগ করতে পারবেন। এটা তেমন আধুনিক জায়গা নয় কিন্তু পরিচ্ছন্ন এবং গ্রাম-বাংলার একটা ছোয়া আছে এর আদলে। বর্ষায় প্রতিটি মাচাং কে দেখা যায় দ্বীপের মতো। যেকোন মাচাং এ বসে আলসেমি করুন, ঘাটে বাধা নৌকা নিয়ে বিলে ঘুরে বেড়ান।

এক কথায় গ্রাম্য প্রকৃতি আপনাকে আবেশে আচ্ছন্য করে ফেলবে। প্রেমে পরে যাবেন গ্রামের মেঠো পথের। সন্ধ্যার পর আড্ডার দেয়ার জন্য হ্যাজাক জ্বালিয়ে দিবে, আবছা আলোয় অন্যরকম এক ভালো লাগা সৃষ্টি হবে মনের মাঝে। ডে ট্যুর এবং রাতে থাকা ২ ধরনের আয়োজন ই তাদের তৈরী আপনাকে মুগ্ধ করার জন্য।

জল ও জঙ্গলের কাব্য, পুবাইল

সকালের নাস্তা হিসেবে জল ও জঙ্গলের কাব্যে আয়োজন থাকে চিতই পিঠা, গুড়, লুচি, মাংস, ভাজি, চা, মুড়ি। দুপুরের খাবার হিসেবে সাদা ভাত, পোলাও, চালতা দিয়ে ডাল, মুরগীর মাংস, নিজস্ব পুকুরে ধরা রুই মাছ, গুড়া মাছ, তেতুল দিয়ে কচুমুখী, আলু ভর্তা, ডাল ভর্তা, ঘন ডাল, সব্জি ইত্যাদি। বৈকালিক নাস্তা হিসেবে পিঠা ৪-৫ রকমের, চা / কফি ইত্যাদি। ডে ট্যুরে জনপ্রতি খরচ প্রায় ১৫০০ টাকার মতো। রিসোর্টের ছবি দেখতে ওদের ফেসবুক পেজে ভিজিট করতে পারেন এই লিঙ্কে। (১০ জনের নিচে বুকিং হয় না)।

জল ও জঙ্গলের কাব্য, পুবাইল

ফোনঃ 01919-782245
ফেসবুক পেজঃ https://www.facebook.com/jolojongolerkabbo
ঠিকানাঃ পাইলট বাড়ি, ডেমুরপাড়া, পুবাইল, জয়দেবপুর।


গত এক বছর এরকম একটি লেখা ফেসবুকে মাঝে মধ্যেই ঘুরে বেড়ায় টাইটেল এমন যে ঢাকার আশেপাশে বা, গাজিপুরের ২০টি রিসোর্ট, ৩০ টি রিসোর্ট আর ক্লিক করে যখন পড়তে যাই তখন ই খাই ধোকা। কারন, অনলাইনে একটা লেখাই কপি পেস্ট হতে হতে হাজার হাজার পেজ, ওয়েবসাইট, ব্লগে চলে গেছে। কেউ হয়তো কষ্ট করে লিখেছিলেন কিন্তু তারপর আর কেউ সেটা পরিমার্জন বা, আপডেট করেন নাই বললেই চলে। সেই ২-৩ বছর আগের তথ্যই অনলাইনে ঘুরে বেড়াচ্ছে যার কারনে অনেকেই সমস্যায় ও পরছে।

এই কয় বছরে যেমন দারুন কিছু রিসোর্ট হয়েছে তেমনি বেশ কয়েকটি বন্ধ হয়ে গেছে আবার অনেক রিসোর্ট এর বেশ অনেক খারাপ রিভিউ পাওয়া গেছে। তাই এই তথ্যগুলো আপডেট কে করবে সে চিন্তা না করে নিজেই বেড়ালের গলায় ঘন্টা বাধতে নেমে গেলাম। প্রাথমিক ভাবে ৩০টি রিসোর্ট নিয়ে লিখবো ইনশাল্লাহ। পরবর্তীতে আস্তে আস্তে বাড়বে। সবগুলো রিসোর্ট রিসোর্ট/হোটেলের লিস্ট (ইন্ডেক্স) পাবেন এই লেখায়


ভ্রমন সংক্রান্ত যেকোন প্রশ্ন / ইনফরমেশন লাগলে আমাকে ফেসবুকে নক করতে পারেন। অথবা, আমার ফেসবুক ট্রাভেল গ্রুপ “ছুটি ট্রাভেল গ্রুপ” এ পোস্ট করলে আমাদের সহযোগিতা পাবেন।