Mh Mehedi

Open Source Enthusiastic and Linux System Administrator

ফ্রিল্যান্সিং করেন ; কিন্তু তাই বলে কি সবার কাজ করবেন ? আসুন জেনে নিই –

গতকাল একটা পোস্ট লেখলাম ; যা সারা পেলাম আজ আবার লেখার জন্য হাত নিশপিশ করতেছে, তাই ঘুম থেকে উঠেই বসে পড়লাম। তাহের ভাই কে ধন্যবাদ, তার উৎসাহ না পেলে আজ আর আমার এটা লেখা হতো না।

আসুন জেনে নিই ওডেস্কে/ফ্রিল্যান্সার এ কাদের কাজ করার আগে একটু ভেবে করবেন। লিস্টটা খুবই ছোট। নং ওয়ানে আছে আমাদের প্রিয় বন্ধু ভারত। ওদের ক্ষেত্রে কি কি সমস্যা বিস্তারিত বলি। তারা বলবে টাকা নিয়ে ভাববেন না। কাজ করার শেষে আপনাকে বোনাস ও দিবো। প্রথমে যদি ১০০ ডলার এ কাজ ফিক্স করেন। পরে আরো কয়েকটা টাস্ক দিবে। মোটামুটি ভাবে ২০০ ডলার এর কাজ করাই নিবে। কাজ মোটামুটি শেষের দিকে হলে সে হাওয়া হয়ে যাবে আপনাকে কোন পেমেন্ট না দিয়েই। আমি যা দেখেছি তাদের ভালো ভালো কিছু কোম্পানী ও এমন করে যারা তাদের রাজ্য মোটামুটি বিখ্যাত। প্রথম প্রথম যারা ফ্রিল্যান্সিং করেন তাদের টাকা মাইর যায় বেশি। সেজন্য অনেকে হতাশায় ডুবে পরেন। আপনাদের জন্য আমার পরামর্শ কার কাজ করছেন আগে যাচাই করে নিন। কোন সন্দেহ থাকলে আপ-ফ্রন্ট নিন।না হয় বলে দিন আমি আপনার কাজ করবো না। কাজের জন্য একেবারে মরিয়া হয়ে উঠবেন না। টাকা ইনকাম আপনি পরেও করতে পারবেন , এবং ভালো ভাবেই করতে পারবেন, কিন্তু ক্যারিয়ার এর প্রথমে একটা খারাপ ফিডব্যাক আপনার ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ারকে হুমকির মুখে ফেলতে সক্ষম। আমি এখন কোন ইন্ডিয়ান এর কাজ করতে গেলে ৫০% আপফ্রন্ট ছাড়া কাজ করি না। পূর্বের অভিজ্ঞতা খুব তিক্তকর।

 

এবার আসি আর এক জায়ান্ট এর কাছে , নাম ফিলিপাইন। তেনারা খুবওই উচ্চ বংশীয় এবং তেনারা মনে করেন তেনাদের সময় ছাড়া অন্যকারো সময়ের কোন দামই নাই। তেনারা কি করবেন, আপনাকে ৮টায় অনলাইন এ থাকতে বলবেন এবং তিনি ১০টায় জানাবেন যে আজ না কাল কথা হবে। তেনারা ১০ ডলার এর কাজ ১ ডলার এ করাই নিতে পারদর্শী। আমি অবাক হই তারা ওয়ার্ডপ্রেস এক্সপার্ট চান ১ ডলার পার আওয়ার এ। আবার তারা লোক ও পেয়ে যান। এদের থেকে একটু সাবধান। তাদের কাছে আপফ্রন্ট চেয়েও আপনি পাবেন না। তাই তার আগে ফিডব্যাক মিনিমাম ৪০-৫০টা এবং কত পে করেছে সেটা দেখে নিন। যদি রিলাইএবল হয় তবেই তার কাজ করুন।

এই গেল ২ বিগ জায়ান্ট এর কথা। কিন্তু শ্রীলংকান এবং পাকিস্তানিদের এর ক্ষেত্রে ও সাবধানতা অবলম্বন করবেন।

আপ-ফ্রন্ট নিয়ে কিছু কথা। অনেকেই বলেন, আপফ্রন্ট কত চাওয়া উচিত ? ৫ ডলার এর কাজ আপফ্রন্ট চাওয়া কি ঠিক হবে ? এসব হাবি জাবি। আপনি একটু ভালভাবে চিন্তা করে দেখেন তো আপফ্রন্ট সিস্টেমটা কেন দেওয়া হয়েছে বলে আপনার মনে হয়? যদি আপনার বায়ারকে বিশ্বাসযোগ্য বলে মনে না হয় শুধুমাত্র তখনই আমি আপফ্রন্ট চাই। যেমনঃ একেবারে নতুন বায়ার (এটাই ফার্স্ট কাজ তার), পূর্বের ফিডব্যাক ভালো না এমন বায়ার, আগের কন্ট্রাকটর দের কোমেন্ট এ পেমেন্ট না দেয়ার আভাস পেলে, সাব-কন্টিনেন্ট এর বায়ার হলে, ফিলিপিনো হলে, আর যদি খুব বড় প্রজেক্ট হয় তাহলে কাজ ২০/৩০% কাজ করার পর কিছু আপফ্রন্ট চাই।

আমি একজন বায়ার এর কাজ করেছি, সে আমেরিকান। National PC Solution তার কোম্পানীর নাম। ৫০০ ডলার এর কাজ। একটু বড়ই। আমি তার কাছে কোন আপফ্রন্ট চাই নাই। কাজটা ১ মাস পর যখন শেষ হয় সে আমাকে আমার অংশের পেমেন্ট (২০০ ডলার) বলার আগেই করে দেয়। প্রশ্ন হলো আমি আপফ্রন্ট চাই নাই কেন ? চাই নাই কারন, আমি আগেই দেখেছি যে সে অলরেডি ওডেস্কে ১ কোটি ৮৭ লক্ষ ডলার খরচ করেছে। তার কাছে ৫০০ ডলার ২০০ ডলার কোন টাকা ই না। আমার টাকা মেরে সে বড়লোক হবে না।

এই ব্যাপারগুলো আসলে খুবই ছোটখাট। অনেকে এতো হিসাব কিতাব করেন না। কিন্তু আমি বলবো হিসাব করতে। অন্য ১০ দশজনের থেকে নিজেকে আলাদা করুন। সফলতা আসবেই।

বিঃদ্রঃ ব্যতিক্রম সব জায়গায় যেমন আছে ; এখানে ও আছে। ধন্যবাদ সবাইকে। :)

Previous

ফ্রিল্যান্স ক্লাইন্ট হ্যান্ডলিং এর গুরুত্ত এবং কিছু কথা

Next

ওয়ার্ডপ্রেস থীমের বিভিন্ন ফাইল পরিচিতি

4 Comments

  1. ফেসবুক সোশ্যাল প্লাগিং এর ডিসটার্ব এর কারনে ওটা আন-ইন্সটল করলাম এবং কিছু গুরুত্তপূর্ন মন্তব্যে হারালাম। 🙁 🙁

    মামুন সৃজন ভাই এর অনুরোধে উপরে আপফ্রন্ট নিয়ে লেখা অংশটুকু হাইলাইট করে দিলাম।

  2. আমাদের মতো যারা কাজই শুরু করতে পারলো না, তারা কতদিন ধৈর্য নিয়ে এত হিসাব নিকাশ করবে। এখনতো শুধু চিন্তা করি কোন মতে যেন একটা করতে পারি।

    • কেন শুরু করতে পারেন নাই ? ঠিক কোথায় আটকে যাচ্ছেন ?
      বিড করতেছেন ? কিন্তু কাজ পাচ্ছেন না এমন ?

  3. Default

    nice post

Leave a Reply

Powered by WordPress & Theme by Anders Norén